ছবি: সংগৃহীত

‘কিছু দিন আগে আমি পোস্ট দিয়ে বলেছিলাম বানু আপার কথা। উনাকে স্বাবলম্বী করার চেষ্টা ছিল শুধু। আমার কিছু বন্ধু, মুকুল ভাই, আজরা আপু আর সামিয়া আন্টির (সালেহা মনসুর ফাউন্ডেশন) সহায়তায় উনার জন্য ছোট একটা দোকান করা হয়েছে।’ আজ (২৭ মে) সকালে ফেসবুকে লাইভে এসে এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন মডেল ও উপস্থাপিকা জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া।

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করা হয় এই মডেলের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘বানু প্রতিবন্ধী। আপনারা হয়তো ছবিতে খেয়াল করবেন, তার দু হাতই নাই। তার আয়ের পথ নেই। তিনি সাবলম্বী হতে চেয়েছিলেন। আমিও চেয়েছি আমার শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিয়ে তার সেই পথটা তৈরি করতে। তার জন্য একটি দোকান তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে যে আর্থিক সহায়তা করা হয়েছে এটা তার জন্যই হয়তো কিছু না, কিন্তু একটা পথ তো তৈরি হলো। সামিয়া আন্টি একটা সেলাই মেশিনও উনার মায়ের ফাউন্ডেশন (সালেহা মনসুর ফাউন্ডেশন) থেকে কালকের মধ্যে পাঠিয়ে দেবেন।’

নীলফামারীর এক গ্রামের দরিদ্র পরিবারে দুটি হাত ছাড়া জন্ম হয়েছিল বানু আকতারের। পায়ের সাহায্যেই সুঁই-সুতা দিয়ে পুঁতি গাঁথেন, পুতুল, শোপিস, ব্যাগসহ নানান ধরনের জিনিস তৈরি করতে পারেন। বিষয়টি পিয়া জানতে পেরে তাকে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন। বানু আকতার পড়ালেখাও করেছেন অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত। এখন গাজীপুরে থাকেন। সেখানেই তার দোকানটি তৈরি করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে আইসিসি ওয়ার্ল্ড কাপ-২০১৯ সরাসরি মাঠ থেকে উপস্থাপনা করবেন পিয়া। আজ ২৮ মে সকালে লন্ডনের উদ্দেশে রওনা দেবেন। প্রতিটি ম্যাচেই তিনি উপস্থাপনার দায়িত্বে থাকবেন। তার এই উপস্থাপনা দেখা যাবে তিনটি মাধ্যমে। টেলিভিশনে দেখা যাবে ‘জিটিভি’ আর অনলাইনে ‘র‌্যাবিটহোল স্পোর্টস’ ও ‘বায়োস্কোপে’।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন…

তারুণ্য বার্তায় আরও পড়তে পারেন:
আপনার মতামত লিখুন