দীপিকা পাডুকোন

প্রথমেই যাঁর কথা না বললে নয়, তিনি দীপিকা পাডুকোন। কিংফিশার ব্র্যান্ডের একজন সফল মডেল ছিলেন দীপিকা। ২০০৬ সালে কিংফিশারের ক্যালেন্ডার গার্ল হয়েছিলেন। এটাও শোনা গিয়েছিল, কিংফিশার ব্র্যান্ডের সঙ্গে থাকাকালীন বিজয় মাল্যের ছেলে সিদ্ধার্থের সঙ্গে দীপিকার প্রেমের সম্পর্কও তৈরি হয়েছিল। ২০০৮ সালে মাল্যর আইপিএল দল আরসিবি-র ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হন।

ক্যাটরিনা কইফ

কিংফিশার ক্যালেন্ডারের প্রথম পর্বের ক্যালেন্ডার গার্ল ছিলেন ক্যাটরিনা কইফ। বিকিনি শুট করেছিলেন তিনি। এর পরই বলিউডে সুযোগ পেয়ে যান। ওই বছরই তিনি ‘বুম’-এ প্রথম অভিনয় করেন।

নার্গিস ফখরি

২০০৯ সালে ক্যালেন্ডার গার্ল হয়েছিলেন নার্গিস ফখরি। তার দু’বছর পর ২০১১ সালে বলিউডে ‘রকস্টার’ করেন। তাঁর প্রথম ছবিই বক্স অফিসে হিট হয়। ফিল্মে রণবীর কপূরের বিপরীতে অভিনয় করে নজর কাড়েন নার্গিস।

ইয়ানা গুপ্তা

অভিনেত্রী, মডেল এবং লেখিকা ইয়ানা গুপ্তা প্রথম নজরে আসেন ২০০৩ সালে কিংফিশার ক্যালেন্ডার মডেল হয়ে। ২০০৩ সালে ‘দম’ ফিল্মে ‘বাবুজি জারা ধিরে চলো’ গানে তাঁর পারফরম্যান্স খুবই প্রশংসিত হয়েছিল। বলিউডের আইটেম গানে এক সময়ের পরিচিত মুখ ছিলেন এই ইয়ানাই।

এষা গুপ্তা

২০০৭-এ দেশের অন্যতম সেরা সুন্দরী প্রতিযোগিতা জেতেন এষা গুপ্তা। তবে বলিউডে সে ভাবে সুযোগ পাচ্ছিলেন না। ২০১০ সালে ক্যালেন্ডার গার্ল হন। তার পর ২০১২ সালে ‘জন্নত ২’-এ তাঁর বলিউড ডেবিউ।

লিসা হেডেন

কিংফিশার ক্যালেন্ডার গার্ল, কভার গার্ল, ফ্যাশন ডিজাইনার, অভিনেত্রী, টিভি পরিচালক এবং সব শেষে রিয়েলিটি শো-এর বিচারক। লিসা হেডেন পরিচয় দিতে গেলে এত কিছুই বলতে হয়। ‘কুইন’, ‘হাউসফুল ৩’ এবং ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ ছবির জন্যই বেশি পরিচিতি পেয়েছেন এই সুপারমডেল। কিন্তু তারও আগে ২০১১ সালে কিংফিশার ক্যালেন্ডারে তাঁর ছবি ছাপা হয়।

পুনম পাণ্ডে

বলিউডে কনট্রোভার্সি কুইন হিসাবেই পরিচিত পুনম পাণ্ডে। ২০১১ সালে বলেছিলেন, ভারত জিতলে তিনি নাকি জনসমক্ষে নগ্ন হবেন। ওই এক মন্তব্যের জেরে টুইটারে তাঁর ফলোয়ার সংখ্যা এক লাফে কয়েক গুণ বেড়ে গিয়েছিল। ২০১১ সালেই তিনি কিংফিশার ক্যালেন্ডারের জন্য হট ফটোশুট করেছিলেন। বলিউডে পা রাখলেও তাঁর জনপ্রিয়তা ফিল্মে অভিনয়ের জন্য অবশ্য নয়।

জেন ডায়াস

বলিউডের খুবই পরিচিত নাম সারা জেন ডায়াস। তবে বলিউডে আসার আগে তিনি ২০০৭ সালে সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় জেতেন এবং ২০১৫ সালে কিংফিশার ক্যালেন্ডার মডেল হওয়ার সুযোগ পান।

র‌্যাচেল রাও

২০১২ সালের আন্তর্জাতিক মানের একটি সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় জিতে র‌্যাচেল রাও ২০১৪ সালে ক্যালেন্ডার গার্ল হন। ‘ঝলক দিখলা যা ৬’, ‘খতরোঁ কি খিলারি’, ‘বিগ বস ৯’-এ তিনি সুযোগ পান এর পর।

আপনার মতামত লিখুন